সপ্তাহে কমপক্ষে ৩-৫ দিন ১ ঘন্টা হাটুন/দৌড়ান, প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪ লিটার পানি পান করুন।

Hossain Md Jahir‎

Last Updated on June 29, 2017 by Motu Group Team

ডানপাশের ফুটবলটাও আমি, বামপাশের উদাস ছেলেটাও আমি।

সবাই জানতে চায়, কতটুকু খাবার খেলে, কখন খেলে, কতটুকু ওজন কতদিনে কমবে! আমার ২ মাসে ১৫ কেজি কমানোর গল্প বলি।

আমি ৫ মাসের জন্য ইটালি গিয়েছিলাম ফ্যামিলি রিইউনিয়নের জন্য। চকলেট, কুকি, চিজি ফুড প্রচুর পরিমানে খেতাম, আর কোন কাজ কর্ম ছিল না, বেশ মজার ছুটি কাটিয়ে ১৫ কেজি ওজন বাড়িয়ে দেশে ফিরলাম।

বাংলাদেশে এসে খাওয়া দিলাম কমিয়ে। কমিয়ে বলতে সুপার কমিয়ে। ডাইনিং টেবিলে সবার সাথে খেতে বসতাম। সবাই যা খেত তাই খেতাম। কিন্তু কমিয়ে।

সকালে: ১ টা রুটি, ভাজি যা থাকত সেটা দিয়ে খেতাম, কখনো ১ কাপেরো কম খিচুড়ি খালি খেতাম।

দুপুরে: এক কাপেরও কম ভাত খেতাম। কখনো মাছের তরকারি থেকে শুধু সবজি উঠিয়ে খেতাম একটু বেশি করে, কখনো শুধু শাক দিয়েই খেয়ে উঠাতাম, হঠাত ১ টুকরা মাংস খেতাম।

রাতে: দুপুরের মত।

তখন তো আর এই গ্রুপ ছিল না, আর এত কিছু জানতাম না। তাই নিজের মন মত সব করতাম! এই ডায়েট করতে গিয়ে আমি কখনোই ক্লান্ত বা দুর্বল হয়ে পড়ি নি। আর এক্সারসাইজো করতাম না। হাটা দোউড়ানো কিচ্ছু না।

যাই হোক, ২ মাসে ১৫ কেজি কমিয়ে ৬০ এ চলে আসলাম। ততদিনে আম্মু ইটালি থেকে ফিরল। এয়ারপোর্ট এ আমাকে দেখে চিনতেই পারেনি।

মোটা হউয়ায় চেহারাও কেমন যেন হয়ে গেসিলো। আম্মু এসে বলল, তুই তো অনেক হ্যান্ডসাম হয়ে গেসিস রে!

যাই হোক, এগুলা সবই অতীত। 🙁 এখন আমি ৭৬। আমার মোটা থেকে চিকন হওয়ার আরো কাহিনী ও পর্যায় আছে! সেগুলাও শেয়ার করব ভবিশ্যতে।

আমাদের উদ্দেশ্য টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে সঠিক তথ্য দিয়ে সবাইকে স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলার চেষ্টা করা এবং বাড়তি ওজন কমিয়ে ফেলতে অনুপ্রাণিত করা। আমরা বিশ্বাস করি একজন মানুষকে স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলা মানে এর পাশাপাশি তার পরিবারকেও স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলা। এভাবে আমরা একদিন দেশের সব পরিবারে সুস্বাস্থ্যের বার্তা পৌঁছে দিতে পারব।

Leave a Comment

0 Shares
Tweet
Share
Share
Pin