সপ্তাহে কমপক্ষে ৩-৫ দিন ১ ঘন্টা হাটুন/দৌড়ান, প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪ লিটার পানি পান করুন।

Kazi Nazia Mustary

Last Updated on June 29, 2017 by Motu Group Team

#১০৫কেজিটু৬৮কেজিহওয়ারগল্প
Kazi Nazia Mustary‎

আমি কখনোই সেভাবে শুকনা পাতলা ছিলাম না। সব সময়ই ৮/১০ কেজি ওভার ওয়েট ছিলাম। সবাই মোটা মোটা বলত কিন্তু আমি পাত্তা দিতাম না খুব একটা। বিপত্তি বাধল প্রেগন্যান্ট হবার পর, ওজন হুহু করে বেড়ে গেল ফাইনাল বাড়ল বাচ্চাকে ব্রেস্টফিড করার সময়। ১০৫ কেজি ওজন নিয়ে আমি পুরা ফ্রাস্টেশনে পড়লাম। এবং এর সাথে আশেপাশের মানুষের বুলিং তো ছিলই। যে বাচ্চা হওয়ার পর কখনো ওজন কমেনা সিজারিয়ানের পরে তো আরোই কমেনা। শুনে ভীষন জিদ লাগত। এরপর যখন বাবু ৯ মাস বয়স থেকে ব্রেস্ট ফিডিং ছেড়ে দিল আমার ওয়েট লস জার্নি তখন থেকেই শুরু হলো। আমার এ সংক্রান্ত সব জানাশোনার দৌড় ইন্টারনেট কেন্দ্রিক। কোন এক্সপার্ট অ্যাডভাইস পাইনি শুরুতে, এই গ্রুপের খবরও জানতাম না। হাতের কাছে পেলাম জিএম ডায়েট ( যা লং রানে খুব ক্ষতিকর) এবং ইউটিউব এক্সারসাইজ ও হাঁটা। টানা ৮ মাস এই জিএম আর রেগুলার ভোরে ১.৫/২ ঘন্টা খুব জোরে হেঁটেছি। এই ৮ মাসে ওজন কমল ৩৭ কেজি। এরপরে এই গ্রুপে এক ফ্রেন্ডের মাধ্যেমে যুক্ত হলাম। প্রোপার ডায়েট ও এক্সারসাইজ সম্পর্কে অনেক কিছু শিখলাম ও ক্লিয়ার হলাম। রাতুল ভাই দিলেন ডায়েট সংক্রান্ত সব ধরনের পরামর্শ ও সাব্বির ভাই এক্সারসাইজ সম্পর্কে দুজনেই অনেক হেল্পফুল। ক্রাশডায়েট যে খুব ভাল কিছুনা তা এই গ্রুপে না আসলে এত জলদি বুঝতাম না। ক্রাশ ডায়েটে আমার যা সমস্যা হয়েছে সেটাও বলি, প্রচুর চুল পড়েছে, স্কিন খারাপ হয়েছে। শুরু থেকেই গ্রুপে থাকলে এই সমস্যা ফেস করতে হত না। তাই হাওয়ার পিছে না দৌড়ায়ে অথেন্টিক জায়গা থেকে ডায়েট সম্পর্কে পুরা ধারনা নিয়েই ওজনের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামুন। আমার উচ্চতা ৫’৬”, আমি আরো ৮/১০ কেজি ওজন কমাতে চাই। বর্তমানে ১২শ ক্যালরির ডায়েট ফলো করছি সাথে হাঁটা, জুম্বা, ও অন্যান্য এক্সারসাইজ। আমি ৬০-৬২ কেজি হলেই খুশি আর কমাব না এই ওয়েটই ধরে রাখব। ওজন কমানো একটা লম্বা প্রসেস, তাই ধৈর্য ধরে এর পিছনে লেগে থাকতে হবে। আর আমাদের একটা কমন টেন্ডেসি হচ্ছে যেহেতু খেয়ে ওজন বেড়েছে তাই কিছু খেয়েই কমাতে হবে। উমুক পানি, তুমুক পানি এসব খেয়ে ১০ দিনে ২০ কেজি কমান মার্কা ব্যাঙ্গের ছাতা ডটকমের পোস্ট আসলে ডিজিটাল বুজরুকী ছাড়া আর কিছুই না। প্রোপার ওয়েতে এক্সপার্ট অ্যাডভাইস নিয়ে নিজের শরীর বুঝে ওজন কমানো শুরু করুন। আফটার প্রেগন্যান্সি প্রায় সব মা ই এই কথাটা শোনেন যে আর ওজন কমবে না, এইটা একটা কমপ্লিট বুলশিট কথা। আমাকে দেখুন, আমি পেরেছি আপনিও পারবেন। আর সব শেষে একটা মানুষের কথা না বললেই নয় তিনি হচ্ছেন এই গ্রুপ যার ব্রেন চাইল্ড, এই গ্রুপের ফাউন্ডার শারমিন সুলতানা ক্যাথি আপু। আপনাকে ধন্যবাদ দিলেও কম হয়ে যাবে। এত ইউজফুল একটা গ্রুপ বাংলা ফেসবুক কমিউনিটি তে আর দুইটা নাই। আমাদের এই মোটুগ্রুপ চিরস্থায়ী হোক। হ্যাপী ডায়েটিং।

আমাদের উদ্দেশ্য টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে সঠিক তথ্য দিয়ে সবাইকে স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলার চেষ্টা করা এবং বাড়তি ওজন কমিয়ে ফেলতে অনুপ্রাণিত করা। আমরা বিশ্বাস করি একজন মানুষকে স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলা মানে এর পাশাপাশি তার পরিবারকেও স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলা। এভাবে আমরা একদিন দেশের সব পরিবারে সুস্বাস্থ্যের বার্তা পৌঁছে দিতে পারব।

Leave a comment

Leave a Comment

0 Shares
Tweet
Share
Share
Pin