সপ্তাহে কমপক্ষে ৩-৫ দিন ১ ঘন্টা হাটুন/দৌড়ান, প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪ লিটার পানি পান করুন।

ব্যায়াম ও ডায়েট করছেন তবুও ওজন কমছেনা?

Last Updated on April 29, 2021 by Motu Group Team

আপনি খুব কঠিন ব্যায়ম করছেন। ডায়েট করছেন। তবুও আপনার ওজন কমছে না? আপনি বুঝতে পারছেন না আপনার কি করা উচিত। চলুন দেখা যায় স্বাস্থ্যবিধরা আপনার ওজন না কমার পেছনের কারণ হিসেবে কি বলেন।

  • আপনি ঠিকমতো ঘুমান না: ক্যালরি পোড়ানোর জন্য আপনার শরীরকে পরিপূর্ণ রেস্ট পেতে হবে। তাই পরিপূর্ণ না ঘুমালে আপনার রুটিন কাজ নাও করতে পারে।
  • অতিরিক্ত ব্যায়াম করেন: আপনি যাতে বেশি খেতে পারেন তাই অনেক্ষণ ব্যায়াম করে কাটান? আপনাকে মনে রাখতে হবে ৮০:২০ সূত্র। ওজন কমানোর পেছনে ৮০ শতাংশ অবদান হচ্ছে আপনার ডায়েট ও মাত্র মাত্র ২০ শতাংশ ব্যায়াম। তাই অতিরিক্ত ব্যায়াম করে জলদি ওজন কমানোর আশা ত্যাগ করুন।
  • পেট খালি রাখা চলবে না : একেবারে খাওয়া ছেড়ে দিলে আপনার শরীর ক্যালরি জমা করতে শুরু করবে। আপনি সেটা নিশ্চই চান না।
  • রাতে জলদি খেয়ে ফেলছেন : আপনি কি সন্ধ্যা হতেই রাতের খাবার খেয়ে ফেলছেন? আর জেগে থাকছেন রাত ১২টা পর্যন্ত? এটা ভালো নয়। কারণ ততক্ষণে আপনার আরেকবার ক্ষুধা লেগে যাবে। আর দ্বিতীয়বার খেয়ে ঘুমাতে গেলেই সমস্যা। তাই যখনই খান না কেন সেই অনুযায়ী ঘুমের সময়কেও হালনাগাদ করুন।
  • মানসিক চাপঃ মানসিক চাপ ওজন কমানোর প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করে। মানসিক চাপে থাকলে করটিসল নামক এক ধরনের হরমোন নিঃসৃত হয়, যা ওজন বাড়িয়ে তোলে এবং স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। তাই মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।
  • দ্রুত ফলাফলের আশাঃ দ্রুত ওজন কমানোর আশায় অনেকেই কিছুই হয়ত করছেন বাট যখন কাজ হয়না তখন এগুলো করে ব্যর্থ হয়ে বিষণ্ণতায় ভোগেন। বিশেষজ্ঞরা বলেন, ওজন একদিনেই কমে না। এ জন্য ধৈর্য ধরতে হয়। সময় ও সাধনা থাকতে হয়। মনে রাখুন, এটি মেরাথনের মতো ধীর এবং দীর্ঘ দৌড়, দ্রুত দৌড় নয়।
  • শরীরের কথা শুনুন : কঠিন ডায়েটে থাকলেও মাঝে মাঝে আপনার ডায়েটের বাহিরে খেতে ইচ্ছে করবে। তবুও আপনি খেতে চাইবেন না। আপনার শরীর ব্যায়াম করার জন্য সায় দেবে না তবুও আপনি ব্যায়াম করে যাবেন। এই অভ্যাসগুলো পরিহার করতে হবে। শরীরের কথাও মাঝে মাঝে শুনতে হবে।
  • ওজন কামনোর কোন শর্টকাট রাস্তানাই ডায়েট বলুন আর জিম বলুন দুইটাই শরীরের সাথে মানিয়ে নিতে হবে দিনে দিনে।হ্যালথ বিশেষজ্ঞরা বলেন, যেকোনো অভ্যাসে অভ্যস্ত হতে কমপক্ষে কয়েক সপ্তাহ লেগে যায়। তাই ওজন কমাতে ধৈর্য ধরুন, তাড়াহুড়া করবেন না। সীমিত খাওয়া ও শরীরের জন্য ক্ষতিকর খাবার এড়িয়ে চলার অভ্যাস একবার আয়ত্তে চলে এলেই ওজন কমতে শুরু করবে।

আমাদের উদ্দেশ্য টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে সঠিক তথ্য দিয়ে সবাইকে স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলার চেষ্টা করা এবং বাড়তি ওজন কমিয়ে ফেলতে অনুপ্রাণিত করা। আমরা বিশ্বাস করি একজন মানুষকে স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলা মানে এর পাশাপাশি তার পরিবারকেও স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলা। এভাবে আমরা একদিন দেশের সব পরিবারে সুস্বাস্থ্যের বার্তা পৌঁছে দিতে পারব।

Leave a comment

0 Shares
Tweet
Share
Share
Pin