সপ্তাহে কমপক্ষে ৩-৫ দিন ১ ঘন্টা হাটুন/দৌড়ান, প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪ লিটার পানি পান করুন।

সজনে বা সজনার উপকারিতা

Last Updated on July 29, 2017 by Motu Group Team

সুপার ফুড সজনে। দেখতে কাঠখোট্টা। অনেকেই নাকমুখ সিঁটকে পাত থেকে তুলে দেন। কিন্তু জেনে রাখুন, খাদ্যগুণে কিন্তু এর জুড়ি মেলা ভার। রোগ তাড়াতে ওস্তাদ। অনেক অসুস্থতার খাসা দাওয়াই, এই সরেস ডাঁটা। পেটে পড়লে, যত ব্যামো দূরে পালাবে।

বসন্তের বিদায়, গ্রীষ্মের দাবদাহ। এরই মাঝে জীবনে কখন যেন চুপিসাড়ে চলে আসে এই সবজি। দেখতে-শুনতে খুব ভাল কেউ বলবে না। বরং অনেকেরই না পছন্দ। ডালে-ঝোলে কিংবা শুক্তোয় মিশে কখনও-সখনও পাতে পড়লেই হয়েছে! যেন বোমা পড়েছে এমন রিঅ্যাকশন। সঙ্গে সঙ্গে প্লেট থেকে বাদ। এমনটা কিন্তু একেবারেই করবেন না। নিজের বিপদ তাহলে নিজেই ডাকছেন। স্বাস্থ্যে সজনের উপকারিতা এককথায় অবিশ্বাস্য। রোগব্যাধির যম।

সজনে ডাঁটায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে
জ্বর, সর্দি-কাশির ক্ষেত্রে সুপার দাওয়াই সজনে
অ্যাজমার সমস্যাতেও উপকারী সজনে ডাঁটা
আয়রন, ভিটামিন, ক্যালসিয়ামের বিপুল ভাণ্ডার
হাড় শক্ত করা কিংবা রক্ত পরিশ্রুত করায় উপযোগী সজনে।

গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রে শিশু ও মা দুজনের স্বাস্থ্যের জন্যই এই ডাঁটা খুবই উপকারী।

অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান সমৃদ্ধ সজনে ডাঁটা, ফলে দেহে যেকোনও সংক্রমণ প্রতিরোধে এটির উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে।

গলায়, বুকে বা ত্বকে সংক্রমণ প্রতিরোধে সজনের জুড়ি নেই
হজমশক্তি বাড়ানোর ক্ষেত্রেও সজনে ডাঁটা অতি উপযোগী
কলেরা, ডায়েরিয়া থেকে কোলাইটিস বা জন্ডিসে সজনের রস খুবই উপকারী।

সজনে ডাঁটা নিয়ম করে খেলে ত্বক আরও উজ্জ্বল হয়
বন্ধাত্ব্য প্রতিরোধেও উপযোগী সজনে
সজনে ডাঁটা খাওয়া হাই ব্লাড প্রেশার রোগীদের ক্ষেত্রে বিশেষ উপকারী

আমাদের উদ্দেশ্য টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে সঠিক তথ্য দিয়ে সবাইকে স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলার চেষ্টা করা এবং বাড়তি ওজন কমিয়ে ফেলতে অনুপ্রাণিত করা। আমরা বিশ্বাস করি একজন মানুষকে স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলা মানে এর পাশাপাশি তার পরিবারকেও স্বাস্থ্য সচেতন করে তোলা। এভাবে আমরা একদিন দেশের সব পরিবারে সুস্বাস্থ্যের বার্তা পৌঁছে দিতে পারব।

Leave a comment

0 Shares
Tweet
Share
Share
Pin