সপ্তাহে কমপক্ষে ৩-৫ দিন ১ ঘন্টা হাটুন/দৌড়ান, প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪ লিটার পানি পান করুন।

ঘরেই বানান টক দ্ই

Last Updated on December 2, 2017 by Motu Group Team

সবার সুবিধার জন্য টক দ্ই বানানোর রেসিপি টা আবার দিলাম

দুধ জ্বাল দিয়ে বলক তুলতে হবে । ২-৩ টা বলক উঠলেই আগুন নিভিয়ে দিন , স্বর পড়ার জন্য কিছুক্ষন অপেক্ষা করুন । স্বর পড়লে স্বর টা তুলে নিন । এবার যে কোন পাত্রে , মাটির ই হতে হবে এমন কোন কথা নাই , আগে সংগ্রহ করা দ্ই এর পানি সহ দ্ই দিবেন । তার উপর হাল্কা গরম দুধটা ঢেলে দিবেন ।হাল্কা একটা নাড়া দিয়ে আগের দই টা দুধের সাথে মিশাবেন ।
এবার বেশ গরম স্থান যেমন চুলার পাশে পাত্রটা ঢেকে রেখে দিবেন, যেন নড়াচড়া না হয় ।
এক লিটার দুধে ২ টেবিল চামচ আগের দ্ই এর বীজ দিলেই হবে ।

প্রতীক বিশ্বাস এর সনাতনী পন্হা:
দুধটা একটু গরম করে সর তুলবেন। ভালোভাবে জ্বাল দিতে হবে।
দুইটা ফেনা দিবেন অন্তত।
এরপর একে স্বাভাবিক নিয়মে কিছুটা ঠান্ডা হতে দিন।
এখন দুধটুকুকে একটা মাটির পাত্রে নিন। তখন আগে থেকে সংগ্রহ করে রাখা দইএর বীজ দুধের সাথে ভালোভাবে মিশাবেন।এটা গুরুত্বপূর্ণ। কারন বেশি বীজ দিলে দই মাত্রারিক্ত টক হয়ে যাবে,আর কম দিলে দই জমবে না- তরল রয়ে যাবে।
সাধারণত ১লিটার দুধের জন্য হাফ কাপ দইএর বীজই লাগে।

এরপর বাচ্চা লালনপালন।
নড়বেনাচড়বেনা এমন একটা জায়গা সিলেক্ট করুন। এটাকে এখন উষ্ণ পরিবেশ দিতে হবে। তাই বাড়ির কাঁথা বিছিয়ে নিন।সবচে ভালো হয় একটা পিড়ি নিয়ে,তার উপর কাঁথা বিছিয়ে, কাঁথার উপর পাত্রটি বসালে।নিশ্চই ঢেকে দিবেন পাত্রটি।এরপর ভালোভাবে কাঁথা (এবং পারলে আরও কাপড়)দিয়ে খুব সুন্দর করে চারপাশ উপরননিচ ঢেকে দিন। এবার আপনার আর কিচ্ছু করতে হবেনা। আগের রাতে এভাবে রেখে দিলে সকালে উঠে ফ্রেশ এক পাতিল দই দেখতে পাবেন!!
বিঃদ্রঃ
**নাড়াচাড়া একেবারেই মানা।নড়লে জমাট বাঁধবেনা।বাঁধলেও জলজল হয়ে যাবে।উপরে বেশি জল জমবে।
**গরম কাপড়ে ঢেকে রাখলে সবচে ভালো ফলাফল আপনি আশা করতেই পারেন,এবং এটা আপনি পাওনা।
**মাটির মাত্র কেন?? এটা প্রকৃতির খেলা। সবচে ভালো দই মাটির গোল পাত্রে হয়। দুধের ক্ষেত্রেও আরেকটা ব্যাপার প্রযোজ্য।একই পাত্রে সবসময় জ্বাল দিবেন।বারবার ধুয়ে পরিষ্কার করার দরকার নেই।এতে স্মেইল ও স্বাদ অক্ষুণ্ণ থাকে।
**দই জমাট বাঁধলে আমার আর রুপু আপার দাওয়াত(এটা সবচে গুরুত্বপূর্ণ অংশ) 😛 😛

(অপ্স।আরেকটা কথা। রূপু আপুর অনুমতি ছাড়াই আমি লিখে ফেলেছি। ক্ষমা চাই 🙂

পুনশ্চ: চাইলে মাটির পাত্রে ও করতে পারেন , কাথা দিয়ে ঢাকলেও অসুবিধা নাই ।এগুলো হলো অরিজিনাল কায়দা ।কিন্তু আমি মানুষ টা ফাঁকিবাজ , আমার সব কায়দা শর্টকাট

Leave a Comment

0 Shares
Tweet
Share
Share
Pin